রাষ্ট্রীয় জ্ঞান আয়োগ
ভারত সরকার
  


  নিউ
ইন্ডিয়া এনার্জি পোর্টালের
ইন্ডিয়া ওয়াটার পোর্টাল
নিউ সংস্তুতি ও সুপারিশ

  ভাষা
  English
  हिन्दी
  മലയാളം
  অসমীয়া
  ಕನ್ನಡ
  ارد و
  தமிழ்
  नेपाली
  মণিপুরী
  ଓଡ଼ିଆ
  ગુજરાતી
আমাদের বিষয়ে | উপদেষ্টা ও কর্মীবৃন্দ

উপদেষ্টারা

ডঃ অশোক কোলাস্কর (উপদেষ্টা)

জীবতথ্যবিজ্ঞানের (বায়ো-ইনফরম্যাটিক্স) একজন পথপ্রবর্তক রূপে অশোক সরকারের ‘বায়োটেকনলজি বিভাগের বায়ো-ইনফরম্যাটিক্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্সেজ টাস্ক ফোর্সে’র একজন সদস্য৷ গত ২৮ বছর ধরে ভারতে ও আমেরিকায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে কাজ করেছেন এবং বহু মূল গবেষণা-কর্ম প্রকাশিত করা ছাড়াও অনেকগুলি সফ্টওয়্যার এবং ওয়েব-নির্ভর ডেটাবেস তৈরি করেছেন৷ পুণা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপকুলপতি রূপে উনি বিশ্ববিদ্যালয় সঞ্চালন, আর্থিক ব্যবস্থাপনা, গুণমান-বিষয়ক নিশ্চিততা -- এইসব বিষয়ে আমূল পরিবর্তন এনেছেন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থভাণ্ডারের বহুগুণ বৃদ্ধি করতে পেরেছেন৷ বহু পুরষ্কারে ভূষিত হয়েছেন এবং এছাড়াও উনি বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক সংস্থা ও অকাদেমির সক্রিয় সদস্যও৷


Kalpana Dasgupta (Advisor)

Former Librarian of the National Library and Director of the Central Secretariat Library, Smt. Kalpana Dasgupta served as the Chairperson of the Working Group on Libraries of the National Knowledge Commission and is currently the Advisor to the NKC on Libraries. She has served as the President of the Indian Library Association and has been the Indian representative in the regional standing Committee for Asia and Oceania of International Federation of Library Associations (IFLA). She has over 40 years of working experience in the profession and has served as a member of many high-power Committees for the Government of India. She is presently a member of the Library Board of Khuda Baksh Library, the Raja Rammohun Roy Library Foundation and the Panel of Experts of National Institute of Science Communication and Information Resources (NISCAIR). She has traveled extensively to represent Government of India as well as several institutions in various international seminars and conferences. She also has the distinction of being the first, and only, woman to hold the posts of Librarian, National Library; Director, Central Secretariat Library and President, Indian Library Association.


Razia Sultan Ismail (Advisor)

A development activist, Razia Sultan Ismail has specialized in information management and communication planning, policy advocacy, alliance-building and non-formal approaches to training and capacity-building. Moving from news media, she served the United Nations for 23 years as an information and advocacy professional heading regional and national programmes for external relations and extension education for UNICEF in South Asia and India.She pioneered policy attention to the rights of the girl child in the 1980s.Her ongoing engagement with people’s action for child rights and inter-faith dialogue includes leadership in NGO review and reporting on development with justice. Awarded UN Fellowships on Population and women, and a Permanent Fellow of the World Press Institute, she chairs the World Social Forum India Trust.



কর্মীবৃন্দ

শ্রী সুনীল বাহরী (এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর)

দিল্লী স্কুল অব ইকনমিক্স থেকে এম.এ. করার পর ইনি ভারতের অডিট ও একাউন্টস সার্ভিসের অফিসার রূপে কর্মরত৷ গত ২৫ বছর উনি কেন্দ্রীয় এবং রাজ্যস্তরের বহু ক্ষেত্রে পাব্লিক ফিনান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট ও অডিটের কাজে অভিজ্ঞতা লাভ করেছেন৷ ওঁর মূল অভিজ্ঞতা হলো স্ট্র্যাটেজিক প্ল্যানিং, মানব সংসাধন ব্যবস্থাপনা, পারফরমেন্স অডিট এবং ই-গভর্নেন্স সংক্রান্ত প্রয়োগ৷ এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর রূপে উনি আয়োগের শাসকীয় ও গবেষণা-সংক্রান্ত কাজ কর্মগুলির সংযোগ-সাধনের দিকটি দেখেন৷


চন্দনা চক্রবর্তী (গবেষণা সহযোগী)

চন্দনা চক্রবর্তী সি.সি.এম.বি.-র মতো সি.এস.আই.আর.-এর একটা আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মূল গবেষণা পরীক্ষাগারের গঠন ও উন্নতির ক্ষেত্রে (ডঃ পি.এম. ভার্গব-এর সঙ্গে) একটা অন্যতম মুখ্য ভূমিকা গ্রহণ করেন৷ ভারতে ও বিদেশে প্রকাশিত বহু বই, ম্যাগাজিন ও সংবাদপত্রে ওঁর শতাধিক গবেষণা-পত্র প্রকাশিত হয়েছে৷ সামাজিক কর্মকর্তা রূপে উনি হায়দ্রাবাদে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার আহ্বায়ক হিসেবে নিয়োজিত, যার নাম হলো এম.এ.আর.সি.এইচ.৷ ১৯৯৫-এ নিউ ইয়র্কে রাষ্ট্রসংঘে আয়োজিত বিশ্ব যুবা নেতৃত্ব শিখর সন্মেলনে উনি ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেন এবং বর্তমানে উনি থার্ড ওয়ার্লড একাডেমি অব উইমেন সাইন্টিস্ট-এর ফেলো ও ওয়ার্লড একাডেমি অব আর্ট এন্ড সাইন্স-এর ফেলো৷


শ্রিয়া আনন্দ (গবেষণা সহযোগী)

শ্রিয়া রাষ্ট্রীয় জ্ঞান আয়োগে ২০০৬-এর এপ্রিলে যোগ দেন যার আগে ‘ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস’-এর অর্থনীতি বিভাগে ছমাস সহকারী গবেষক হিসেবে কাজ করেন৷ ভারতে যে ব্যবসা-বাণিজ্যের পর্যায়-ভেদ এবং এই ক্ষেত্রে যে সরকারী সংস্থাগুলির বেসরকারীকরণ চলছে, শ্রিয়ার গবেষণার বিষয় ছিল এই বিষয়৷ গণিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করে শ্রিয়া লন্ডনে গোল্ডম্যান স্যাক্সে কাজ করেছিলেন৷ আয়োগে ইনি আবিষ্কার ও নতুন বাণিজ্য উদ্যোগ, বৃত্তিগত শিক্ষা এবং পাঠাগার ইত্যাদি বিষয় নিয়ে কাজ করছেন৷


মিতাক্ষরা কুমারী (গবেষণা সহযোগী)

ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনস এন্ড ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ-এই বিষয়ে স্নাতকোত্তর অধ্যয়নের পর মিতাক্ষরা ব্রুসেল্সের ইউরোপীয় কমিশনের ডিরেক্টর জেনারেল ফর ডেভেলপমেন্ট -- এই অফিসে যোগ দেন৷ কমিশনে ওঁর কাজের বিষয় ছিল খাদ্য সুরক্ষা, কৃষির আধুনিকীকরণ এবং শাসন-ব্যবস্থা -- বিশেষ করে পূর্ব আফ্রিকার উন্নতিশীল দেশগুলির সন্দর্ভে৷ মিতাক্ষরা ইউরোপিয়ান ইনস্টিটিউট ফর এশিয়ান স্টাডিজেও কাজ করেন যা হলো ব্রুসেলস্-কেন্দ্রিক একটি বৌদ্ধিক বিচার-সংস্থা, যেখানে থাকতে থাকতে ই.আই.এ.এস. ম্যাগাজিন-বুলেটিনে উনি ভারত ও ইউরোপীয় ইউনিয়ানের মধ্যে যে প্রগতিশীল সহযোগিতার ক্ষেত্রে পরিবর্তনের জোয়ার এসেছে সেই বিষয়ে একটি গবেষণাপত্র প্রকাশিত করেন৷ রাষ্ট্রীয় জ্ঞান আয়োগে ওঁর কাজের বিষয় হলো ই-গভর্নেন্স, নেটওয়ার্ক ও পোর্টাল, সাক্ষরতা এবং ভাষা৷


Dr. Shomikho Raha (Research Associate)

Shomikho completed his PhD from Cambridge University and elected a Rouse Ball scholar by Trinity College to continue postdoctoral research. Previously educated in Delhi, he was recipient of the university gold medal. His doctoral research analysed how the developmental strategies deliberately adopted to legitimate power and authority in the newly independent Indian state influenced empirical case studies on a water conflict, nuclear energy policy, and government collaboration with industry interest groups. His academic interests focus on a comparative analysis of the changing role of state involvement in projects of socio-economic development and governance. He has previously worked with The Brookings Institution (Washington, D.C.) and the Economist Intelligence Unit (London). At the NKC, his areas of focus are on Innovation and Entrepreneurship and on Professional Education (Health and Management).


অম্লানজ্যোতি গোস্বামী (গবেষণা সহায়ক)

অম্লানের আইন-বিদ্যায় প্রশিক্ষণ হয়েছে হার্ভার্ড-এর ল-স্কুল ও দিল্লী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে৷ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বর্ণ-পদক এবং ইনল্যাক্স স্কলারশিপের দ্বারা অম্লান সন্মানিত হয়েছেন৷ উনি রাষ্ট্রীয় জ্ঞান আয়োগে আসেন ভারতে ও আমেরিকায় গবেষণা, আইন-বিষয়ক পরামর্শদানের অভিজ্ঞতা, মোকদ্দমার অভিজ্ঞতা এবং কর্পোরেট বাণিজ্য-সংস্থায় আইনী উপদেশ-দানের অভ্যাস নিয়ে৷ রাষ্ট্রীয় জ্ঞান আয়োগে ওঁর কাজের বিষয় হলো বৌদ্ধিক সম্পদা অধিকার বা IPR, আবিষ্কার এবং শিল্পোদ্যোগের বিষয় ছাড়াও ভারতে আইন-শিক্ষার দিকটিও৷


Aditi Saraf (Research Associate)

Aditi joined the National Knowledge Commission in September 2006, after completing an MA in Sociology from Delhi University. She is a recipient of the university gold medal, and has been a guest lecturer in Delhi University in the undergraduate course on Gender and Society.At the NKC, she is currently working on Agriculture and School Education.


আশিমা শেঠ (কার্যনির্বাহক সহকারী)

আশিমা এয়ার ফোর্স বাল ভারতী স্কুলে পড়াশোনা করেন এবং দিল্লী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক৷ এরপর ইনি দিল্লীর ওয়াই.ডব্লিউ.সি.এ. থেকে এক্সিকিউটিভ সেক্রেটারিয়াল প্র্যাক্টিসের কোর্স করেন৷ বর্তমানে ভারতীয় বিদ্যা ভবনে ফরাসী ভাষা শিখছেন৷ রাষ্ট্রীয় জ্ঞান আয়োগে যোগ দেবার আগে ইনি একটি বেসরকারী সামাজিক সংস্থা-চালিত স্কুলে সাত মাস পড়ান৷ রাষ্ট্রীয় জ্ঞান আয়োগে কর্মাবধিতে ইনি নানান ধরনের দায়িত্ব পালনে অভিজ্ঞতা লাভ করেন যার ফলে আয়োগের দৈনন্দিন কাজে-কর্মে একটা নির্বাধ গতি আসতে পেরেছে৷